Close

Donate today to keep Global Voices strong!

Our global community of volunteers work hard every day to bring you the world's underreported stories -- but we can't do it without your help. Support our editors, technology, and advocacy campaigns with a donation to Global Voices!

Donate now

See all those languages up there? We translate Global Voices stories to make the world's citizen media available to everyone.

Learn more about Lingua Translation  »

Hindus Attacked in Bangladesh for ‘Crime’ of Voting

People from various cultural, social platforms took out anti-communalism demonstration in Dhaka in protest against attacks on religious minorities after the 10th National Poll. Image by Rahat Khan. Copyright Demotix (8/1/2014)

People from various cultural and social platforms mounted a demonstration in Dhaka against attacks on religious minorities after the 10th national elections. Image by Rahat Khan. Copyright Demotix (8/1/2014)

Minority groups in Bangladesh, especially Hindus, have become easy targets for anti-vote activists following the country's tense 10 national parliamentary elections. Homes and other properties have been attacked, torched or vandalized, and many have been forced to live under open sky in the meantime.

The elections on January 5, 2014 were met with violence in some areas; many opposition parties led by the Bangladesh Nationalist Party (BNP) have boycotted the polls, leaving ruling party candidates unchallenged. They continue to protest against them.

Some victims said they were attacked because they voted in the elections. Shah Ali Farhad (@shah_farhad) wrote in Twitter:

Shahbag Wordwide (@Projonmo13) highlighted the reported tally of violence against minorities in Jessore in the south of the country:

The government has come under fire for not being able to provide enough security for the people. But the son of the Prime Minister Sajeeb Wazed promised swift justice:

গতকালের নির্বাচনে ভোট দেয়ার কারণে বিএনপি-জামায়াতের ক্যাডাররা যশোর ও দিনাজপুরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর হামলা চালিয়েছে। যশোরে ১৫০ জন হিন্দুর বাড়ি জামায়াতের সন্ত্রাসীরা সম্পূর্ণ তছনছ করেছে, লুট করেছে এবং জ্বালিয়ে দিয়েছে। দিনাজপুরে ১০০ এর উপর হিন্দু বাড়ি এবং দোকান বিএনপি জামায়াতের ক্যাডাররা ভাংচুর করেছে এবং পুড়িয়ে দিয়েছে। আমাদের সরকারের স্থানীয় কর্মকর্তারা ভুক্তভোগীদের সহায়তা করছেন। এই ঘটনায় দায়ীদের আমরা চিহ্নিত করার চেস্টা করছি এবং তাদের অবশ্যই আমরা বিচারের মুখোমুখি করবো।

The BNP-Jamaat protesters attacked minorities in Jessore and Dinajpur because they voted in the recent elections. In Jessore 150 houses were looted by Jamaat miscreants and burnt. In Dinajpurmore than 100 Hindu shops and houses were attacked by BNP-Jamaat goons. Our government is trying to help the victims. We are trying to identify the culprits and place them under trial as soon as possible.

However, BNP's Acting Secretary General Mirza Fakhrul Islam Alamgir blamed the government instead for the attacks, and said:

The planned attacks on minorities are an attempt to divert attention from the voters’ absence and enthusiastic boycott of the farcical elections amid criticism from national-international organisations.

In Bangladesh, it isn't unusual for these types of attacks to happen after elections. Writer Joydeep Dey Shaplu requested on Facebook to relieve Hindus of the responsibility to vote:

২০০১ এ প্রথম আলোয় লিখেছিলাম ভোট দেয়ার পাপ থেকে আমাদের মুক্তি দিন। আজ তাই মনে হচ্ছে আবার।

In 2001 I wrote an article in the Daily Prothom Alo that [being a minority] please relieve us of the crime committed by voting. I feel like that again.

Audity Falguni also chimed in that Hindus should not vote:

নির্বাচনে মানুষ ভোট দেয় নি, তবে হিন্দুদের উপর নির্যাতন করা হচ্ছে কেন? নাকি খালি হিন্দুরাই দিছে? তাহলে কি নিজের ইচ্ছামত কিছু করার অধিকার হিন্দুদের নাই? যদি তাই হয়ে থাকে, তবে আইন করে হিন্দুদের ভোট দেয়ার অধিকার রহিত করা উচিত : Ruma Modak.

Wasn't the election for everybody? So why are Hindus being targeted? Or did only Hindus vote? So are they not free to exercise their rights? If not, please make a law barring them to vote.

Ripon Chakraborty detailed the plights of the victims:

2001 সালে নিজে #আক্রান্ত হয়ে বুঝেছি #সাম্প্রদায়ীক নির্যাতনের #জ্বালা কি। #রাজগঞ্জে দেখেছি- নির্যাতিত #হিন্দুদের সহায়- সম্বল হারিয়ে খোলা আকাশের নীচে রাত্রী যাপন। কী যে কষ্টের এই দুঃসহ যন্ত্রনা– নির্যাতিত ছাড়া কেউ কোনদিন বুঝতেই পারবেনা। সহ্য করতে না পেরে বাপ দাদার ভিটে মাটি ফেলে কেউ কেউ দেশত্যাগী হয়। হয়তো তারা ভালোই থাকে- হয়তো গিয়ে বেঁচে যায়। কিন্তু আমি যে পারিনা- আমি যে এই দেশটা ছেড়ে যেতে চাইনা— আমার কি হবে- আমার “ছোট বাপী”টার কি হবে— কেউ বলতে পারেন???

In 2001 I was a victim of post-electoral violence. I have seen in #Rajgonj how Hindus lost everything and lived under the open sky. If you are not a victim, you can never know that pain. Some of them migrate leaving their ancestral home. Some of them do better, save their lives by escaping. But I cannot. I don't want to leave my country. What will happen to me or my child… Can anyone tell?

The Daily Prothom Alo, a leading daily of the country, has been accused [bn] of instigating violence against the Hindus by publishing an image of minorities waiting to vote, making their Hindu identity prominent by doctoring the photo. In response, Kulada Roy wrote on Facebook:

ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসের মধ্যে দিয়ে নির্বাচন হয়েছে। ভোট বর্জনের ডাক দিয়েছিল বিএনপি-জামায়াত। নির্বাচনের খবর হিসেবে প্রথম আলো প্রথম পাতায় একটি ছবি ছেপেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে– হিন্দুরা ভোট দেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছে। প্রথম আলো এই ছবিটির মাধ্যমে প্রমাণের চেষ্টা করছে যে দশম নির্বাচনে কেবল হিন্দুরা ভোট দিতে এসেছে। আর কেউ নয়।

প্রথম আলো এই ছবির মাধ্যমে সারা দেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর বিএনপি-জামায়াতের আক্রমণের উস্কানী দিচ্ছে। এই খবর প্রকাশের পরপরই যশোরের অভয়নগরে, দিনাজপুরে , ঠাকুরগাঁয়ে সংখ্যালঘু হিন্দুদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। [...]

The election has ended with much violence. BNP-Jamaat boycotted the polls. The daily Prothom Alo published a big picture with their main election news on the front page. There it is shown that Hindu women were standing in queue to vote. Prothom Alo with this photo tried to imply that in a low-turnout election, mostly minorities voted. Not people from the majority Muslim population.

Prothom Alo with this picture is provoking the BNP-Jamaat protesters to retaliate against the Hindu communities [as they did not listen to their call to boycott the polls]. After the news was published, we have seen attacks on Hindu houses in Avoynagar of Jessore, Dinajpur and Thakurgaon.

The newspaper, however, denied [bn] that no published photo was photoshopped. But netizens still accused [bn] the paper of selectively highlighting minorities and publishing hate-filled comments in the comments section of the article.

Many people from Hindu communities have migrated to other countries in the past decades. Blogger Avijit Roy provided some statistics:

বাংলাদেশে ১৯৪১ সালে হিন্দু জনসংখ্যা ছিল শতকরা ২৮ ভাগ। ১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের অব্যবহিত পরে তা শতকরা ২২ ভাগে এসে দাঁড়ায়। এরপর থেকেই সংখ্যালঘুদের উপর ক্রমাগত অত্যাচার এবং নিপীড়নের ধারাবাহিকতায় দেশটিতে ক্রমশ হিন্দুদের সংখ্যা কমতে থাকে। ১৯৬১ সালে ১৮.৫%, ১৯৭৪ সালে কমে দাঁড়ায় ১৩.৫%, ১৯৮১ সালে ১২.১%, এবং ১৯৯১ সালে ১০% এ এসে দাঁড়ায়। সাম্প্রতিক সময়গুলোতে হিন্দুদের শতকরা হার কমে ৮ ভগের নিচে নেমে এসেছে বলে অনুমিত হয়।

In 1941 the ratio of Hindus in present day Bangladesh was 28 percent. In 1947 after the partition of India the figure dropped to 22 percent when the mass migration started. The following decades saw an increase of attacks on minorities and the continuation of migration. The figures dropped further in 1961 to 18.5 percent, in 1974 to 13.5 percent, in 1981 to 12.1 percent and in 1991 to 10 percent. In recent times, it is assumed that the figure has dropped further to 8 percent.

These continuous attacks on minorities have disgraced the nation, wrote Zahid Newaz Khan:

These repeated attacks on minorities and our silence show the quality of civilization in our nation.

Different protests have been arranged across the country, like this
Facebook event, which featured a protest rally in front of the National Museum in Shahbag on 8 January 2014.

Receive great stories from around the world directly in your inbox.

Sign up to receive the best of Global Voices
* = required field
Email Frequency



No thanks, show me the site